1. [email protected] : Faisal Ahmed : Faisal Ahmed
  2. [email protected] : Developer :
  3. [email protected] : Sylhet Press : Sylhet Press
ওসমানী হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ রেখে পালিয়ে যাওয়ায় স্বামী আটক
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪২ অপরাহ্ন

  • আপডেটের সময় : সেপ্টেম্বর, ২৪, ২০২১, ৩:০৪ পূর্বাহ্ণ
ওসমানী হাসপাতাল
ছবি-সংগৃহীত

ওসমানী হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ রেখে পালিয়ে যাওয়ায় স্বামী আটক

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার :: সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ ফেলে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় স্বামী খোকন মিয়াকে (৩০) আটক করেছে পুলিশ। আটক খোকন সিলেটের মোগলাবাজার থানার দাউদপুর এলাকার তিরাশি গ্রামের লাল মিয়ার ছেলে।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে তার বাড়ির পাশে থেকে তাকে আটক করা হয়। এর আগে বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় স্ত্রী রুমির মৃত্যু হলে তাকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ ওঠে খোকনের বিরুদ্ধে । তবে খোকনের পরিবারের দাবি- আত্মহত্যা করেছেন ওই গৃহবধূ।

জানা যায়, খোকন মিয়া বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে তার স্ত্রী রুমী বেগমকে (২১) সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার রুমীকে মৃত ঘোষণা করেন। এরপরই হাসপাতাল থেকে উধাও হয়ে যান খোকন। খোকনের সঙ্গে আসা তার ভাইকেও খুঁজে পাওয়া যায়নি হাসপাতালে।

রুমী বেগমের বাবার বাড়ি সিলেটের এয়ারপোর্ট থানাধীন খাদিমনগর ইউনিয়নের সাহেব বাজার এলাকায়।

বুধবার রাতে রুমীর ভাই জুনেদ মিয়া বলেন, খোকনের সঙ্গে তার বোনের পারিবারিকভাবে ২ বছর আগে বিয়ে হয়। খোকন ও রুমীর সংসারে ১ মেয়েসন্তান রয়েছে।

জুনেদ বলেন, বিয়ের পর থেকেই খোকন বিভিন্ন সময় যৌতুক দাবি করে রুমীকে নির্যাতন করতেন। সম্প্রতি নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে যায়। বুধবার সকালে রুমী তার মাকে কান্নাভেজা কণ্ঠে ফোন করে বলেন- ‘আমাকে বাড়িতে নিয়ে যাও। ওরা আমাকে মেরে ফেলবে।’

বুধবার বিকেলে খোকন তার শ্বশুরবাড়িতে ফোন করে বলেন- রুমী গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তারা রুমীকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছেন।

বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে খোকন ও তার ভাই রুমীকে প্রথমে দক্ষিণ সুরমার নর্থ-ইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তাররা রুমীকে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন। সন্ধ্যা ৬টার দিকে রুমিকে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জুনেদ তার বোনকে হত্যা করা হয়েছে দাবি করে খোকন ও তার পরিবারের সদস্যদের কঠোর শাস্তি দাবি করেন।

এদিকে, রুমী নিহতের ঘটনায় তার ভাই জুনেদ মিয়া বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার মোগলাবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মোগলাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শামসুদ্দোহা পিপিএম বৃহস্পতিবার বিকেলে সিলেটভিউ-কে বলেন, নিহত গৃহবধূর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর ভিত্তিতে অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করা হয়েছে। পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

সিলেটপ্রেসবিডিডটকম /২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১/ এফ কে


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এই বিভাগের আরও খবর


© All rights reserved © 2020 SylhetPress
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ