1. [email protected] : Faisal Ahmed : Faisal Ahmed
  2. [email protected] : Developer :
  3. [email protected] : Sylhet Press : Sylhet Press
হবিগঞ্জে দুই সন্তানের জননীকে ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণ’
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৭ অপরাহ্ন

  • আপডেটের সময় : সেপ্টেম্বর, ১৪, ২০২১, ৮:১৩ অপরাহ্ণ
হবিগঞ্জে দুই সন্তানের জননীকে ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণ’

হবিগঞ্জে দুই সন্তানের জননীকে ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণ’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে রাতের আঁধারে ঘরের বেড়ার টিন খুলে দুই সন্তানের এক জননীকে ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণের’ অভিযোগ ওঠেছে।

সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ওই নারীকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে ভর্তি নির্যাতনের শিকার নারী জানান, তার পনেরো বছর ও আড়াই বছরের দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে। প্রতিরাতের ন্যায় তার স্বামী পার্শ্ববর্তী একটি বিলে মাছ ধরতে যান। এ সময় তিনি ছোট ছেলেকে নিয়ে ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। বড় ছেলে অন্য একটি ঘরে তার দাদার কাছে ঘুমে ছিল। রাত আনুমানিক ২টার দিকে প্রতিবেশি দুই যুবকসহ চারজন ঘরের পেছন দিকের বেড়ার টিন খুলে ভেতরে প্রবেশ করে। এ সময় দুই যুবক তাকে ধর্ষণ। হঠাৎ (কাকতালীয়ভাবে) তার স্বামী চলে আসায় দুর্বৃত্তরা তার স্বামীকে আঘাত করে পালিয়ে যায়।

নির্যাতনের শিকার ওই নারীর স্বামী জানান, মাছ ধরা শেষে রাত দুইটার দিকে তিনি বাড়ি ফিরে আসেন। এ সময় ঘরের দরজা ভেতর দিক থেকে বন্ধ ছিল। কিন্তু ঘরের ভেতর থেকে ধস্তাধস্তির শব্দ শুনে ডাকাডাকি করেন। এক পর্যায়ে ঘরের পেছন দিক দিয়ে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে নির্যাতনের দৃশ্য দেখতে পান। এ সময় দুর্বৃত্তরা তাকে আঘাত করে পালিয়ে যায়।

তিনি বলেন, ‘আমি দুইজনকে চিনতে পেরেছি। তারা আমাদের পাশের বাড়ির। বাকি দুইজনের মুখ কাপড় দিয়ে বাঁধা থাকার কারণে চেনা যায়নি। ৬/৭ মাস আগেও একবার চার যুবকের একজন আমার স্ত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ বিষয়টি নিয়ে ওই যুবকের সাথে আমাদের বিরোধ চলে আসছিল। এ ব্যাপারে আমি মেম্বার-চেয়ারম্যানসহ গ্রামের ময় মুরব্বির কাছে বিচারও চেয়েছি। কিন্তু সবাই আমাকে বিচারের আশ্বাস দিয়েও বিচার করেননি।’

স্ত্রীর চিকিৎসা ও ডাক্তারী পরীক্ষার পর তিনি মামলা দায়ের করবেন বলেও জানান।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মিঠুন রায় জানান, ধর্ষণের অভিযোগ এনে এক নারী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তার চিকিৎসা চলছে। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর ধর্ষণ হয়েছেন কি-না জানা যাবে।

শানখলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুর রহমান তরফদার বলেন, ‘এর আগেও একবার ওই নারীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় এক যুবক। তার স্বামী আমার কাছে বিচার দিয়েছিলেন। সাবেক চেয়ারম্যান সাহেবকে বিষয়টি সমাধানের জন্য বলেছিলাম। কিন্তু তিনি আর সমাধান করেননি। তবে শুনেছি ওই যুবক এই ঘটনার সাথেও জড়িত। বর্তমানে ঢাকায় থাকায় কিছু বলা সম্ভব হচ্ছে না।’

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আশরাফ বলেন, ‘এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ পাইনি। তবে সাংবাদিকদের মাধ্যমে বিষয়টি সম্পর্কে জানার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এসেছি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সিলেটপ্রেসবিডিডটকম / ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ / আল-আমিন


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এই বিভাগের আরও খবর


© All rights reserved © 2020 SylhetPress
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ