1. [email protected] : Faisal Ahmed : Faisal Ahmed
  2. [email protected] : Developer :
  3. [email protected] : Sylhet Press : Sylhet Press
জকিগঞ্জ থানার ওসির দাবী ‘উৎকোচ দেয়ার জন্য ক্লোজ হননি এসআই মোঃ রাজা মিয়া’
মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৭:০৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
৬দফা দাবি নিয়ে রশিদপুরে তিন উপজেলাবাসীর অবস্থান কর্মসূচী বুধবার ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশি হামলার প্রতিবাদে সুনামগঞ্জে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল দিরাইয়ে বেকার যুব মহিলাদের হস্তশিল্প বিষয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা সম্পন্ন জগন্নাথপুরের দক্ষিণ প্রভাকরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন বিশ্বনাথের অলংকারীতে টি-২০ ক্রিকেট লীগ’র ফাইনাল খেলা সম্পন্ন ছাতেক চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন প্রত্যাশি উপশহরে স্বপ্ন সুপার শপের চাকুরিচ্যুতের জের ধরে কর্মচারীদের বিক্ষোভ জামালগঞ্জে অবৈধভাবে বিল সেচের মাধ্যমে মৎস্য নিধন সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদের পাশে=এমপি মোকাব্বির জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক কাদের’র মুক্তির দাবিতে সিলেটে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ

  • আপডেটের সময় : জানুয়ারি, ২৩, ২০২১, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ
জকিগঞ্জ থানার ওসির দাবী ‘উৎকোচ দেয়ার জন্য ক্লোজ হননি এসআই মোঃ রাজা মিয়া’
ছবি-সংগৃহীত

জকিগঞ্জ থানার ওসির দাবী ‘উৎকোচ দেয়ার জন্য ক্লোজ হননি এসআই মোঃ রাজা মিয়া’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: সিলেট জেলা পুলিশের জকিগঞ্জ থানার এসআই মোঃ রাজা মিয়া বিচারককে উৎকোচ দেয়ার জন্য ক্লোজ হননি বলে দাবী করেছেন জকিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মীর মো: আব্দুন নাসের। তিনি গতকাল (২০ জানুয়ারি) তার ফেইসবুকে দেয়া এক ষ্ট্যাটাসে এ দাবী করেন।

এতে তিনি বলেন ‘জকিগঞ্জ আমলি আদালতের সি আর মামলা নং-৫৮/২০২০ খ্রিঃ এর তদন্তকারী কর্মকর্তা জকিগঞ্জ থানার এস আই/জনাব মোঃ রাজা মিয়া মামলাটির তদন্ত শেষে একজন আসামীকে (মোঃ কয়েছ উদ্দিন খান) অব্যাহতি দিয়ে বাকি তিনজন আসামীকে অভিযুক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে গত ২৭-১২-২০২০ খ্রিঃ তারিখ বিজ্ঞ আদালতে পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল করেন। গত ১৯-০১-২০২১ খ্রিঃ তারিখ উক্ত মামলার শুনানির দিন ধার্য ছিল। তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই/জনাব মোঃ রাজা মিয়া কোর্টে সাক্ষ্য প্রদান করতে গিয়ে কোর্টের কার্যক্রম শুরু হওয়ার পূর্বে বিজ্ঞ বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব আনোয়ার হোসেন সাগর মহোদয়ের খাস কামরায় ঢুকে পড়েন। বিনা অনুমতিতে বিচারকের খাসকামরায় ঢুকার কারণে তিনি এসআই/জনাব মোঃ রাজা মিয়া এর উপর অসন্তুষ্ট হন এবং পরবর্তীতে আদালতে মামলাটির শুনানি কালে তাকে ভৎসনা করেন।

এ বিষয়ে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জকিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হিসাবে আমাকে তাঁর অফিসে চা খাওয়ার দাওয়াত দেন এবং উক্ত এসআই/জনাব মোঃ রাজা মিয়াকে মৌখিকভাবে সতর্ক করে দিতে বলেন। উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতে মাননীয় পুলিশ সুপার সিলেট জনাব মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম মহোদয় এসআই/জনাব মোঃ রাজা মিয়াকে ঐদিনই পুলিশ লাইনে ক্লোজ করেন। এ বিষয়টি নিয়ে অতি উৎসাহী বিভিন্ন ব্যক্তি, মহল বা সমালোচকদের কেউ কেউ ঘটনাটিকে রং মাখিয়ে বিভিন্নভাবে উপস্থাপন করছেন এমকি বিভিন্ন পত্রিকায় ভিন্ন ভিন্ন ভাবে সিনিয়র অফিসারের বরাত দিয়ে প্রকাশ ও প্রচার করছেন কিন্তু পুলিশের কোন কর্মকর্তা উৎকোচের বিষয়ে কখনই কোন বক্তব্য বা মতামত প্রদান করেন নাই। এতে ব্যক্তি কিংবা একটি বাহিনীর ভাবমূর্তী ক্ষুন্ন হচ্ছে। অথচ এ ধরনের অনৈতিক কোন লেনদেনের চেষ্টাও কেউ করেনি। এসআই/জনাব মোঃ রাজা মিয়া জকিগঞ্জে অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে চাকুরী করেছেন এবং অনেক নিরীহ অসহায় লোককে যথাযথ সেবা দিয়েছেন।

যেকোন ঘটনা জনসন্মুখে প্রকাশ বা প্রচার করার পূর্বে বিষয়টির সঙ্গে জড়িত বা সম্পৃক্ত ব্যক্তিবর্গ বা সিনিয়র কর্মকর্তাগণের নিকট হতে যাচাই করে তা প্রকাশ করার জন্য অনুরোধ করা হলো।

সিলেটপ্রেসবিডিডটকম /২৩ জানুয়ারি ২০২১/ এফ কে


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এই বিভাগের আরও খবর


© All rights reserved © 2020 SylhetPress
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ