1. [email protected] : Faisal Ahmed : Faisal Ahmed
  2. [email protected] : Developer :
  3. [email protected] : Sylhet Press : Sylhet Press
যৌতুক মামলার আসামী হতে পারেন স্ত্রীও
রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৪১ পূর্বাহ্ন

  • আপডেটের সময় : জানুয়ারি, ৬, ২০২১, ২:২০ পূর্বাহ্ণ
যৌতুক মামলার আসামী হতে পারেন স্ত্রীও
ছবি-সংগৃহীত

যৌতুক মামলার আসামী হতে পারেন স্ত্রীও

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: স্ত্রী স্বামীর বিরুদ্ধে যেমন যৌতুক দাবির মামলা করতে পারে তেমনি স্বামীও স্ত্রীর বিরুদ্ধে যৌতুক দাবির মামলা করতে পারে।তবে দেনমোহর এবং ভরনপোষণের টাকা যৌতুক বলে গণ্য হবে না।

আইন সকলের জন্যই সমান। অধিকার ক্ষুন্ন হলে যে কোন ব্যক্তিরই আইনের আশ্রয় লাভের অধিকার আছে। এটি একটি সাংবিধানিক অধিকার।

আমাদের সমাজে দেখা যায় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে একটু মনমালিন্য হলে বা স্বামী যদি স্ত্রীকে একটু শাসন করে তাহলে স্ত্রী স্বামীকে মামলার ভয় দেখায়।যৌতুকের মামলা করে দিবে বা অনেকে করেও ফেলে।

আমাদের সমাজে অনেক পুরুষ যৌতুকের জন্য তার স্ত্রীর উপর অমানবিক অত্যাচার করে এটা সত্য কথা।তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করা উচিৎ।

তবে এটাও সত্য যে এই যৌতুক শব্দটাকে পুঁজি করে অনেকে অনেক নিরপরাধ ব্যক্তিকে হয়রানিতে ফেলে দেয়।যেটি একটি অনুচিত কাজ।

তখন এই নিরপরাধ ব্যক্তিটি ভাবে শুধু কি স্ত্রীরাই যৌতুকে মামলা করতে পারে?

আইন কি এখানে বৈষম্য তৈরি করেছে?

উত্তর হচ্ছে না আইন কোনো বৈষম্য করেনি।যদি এমন পরিস্থিতি হয় যে স্ত্রীর পক্ষ স্বামীর বাবা-মায়ের কাছে যৌতুক দাবি করেছে তাহলে স্বামীর পক্ষও যৌতুক দাবির মামলা করতে পারবে।কেননা আইনে বলা নাই যে শুধু স্ত্রীই যৌতুক দাবির মামলা করতে পারে।আইনে বলা আছে কোন পক্ষ, আর পক্ষ বলতে স্ত্রী পক্ষও হতে পারে স্বামী পক্ষও হতে পারে।

যৌতুক নিরোধ আইন, ২০১৮ এর ২(খ) ধারা অনুযায়ী “যৌতুক অর্থ বিবাহের এক পক্ষ কর্তৃক অন্য পক্ষের নিকট বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপনের পূর্বশর্ত হিসাবে বিবাহের সময় বা তৎপূর্বে বা বৈবাহিক সম্পর্ক বিদ্যমান থাকাকালে, বিবাহ অব্যাহত রাখিবার শর্তে, বিবাহের পণ বাবদ, প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে, দাবিকৃত বা বিবাহের এক পক্ষ কর্তৃক অপর পক্ষেকে প্রদত্ত বা প্রদানের জন্য সম্মত কোনো অর্থ-সামগ্রী বা অন্য কোনো সম্পদ, তবে মুসলিম ব্যক্তিগত আইন (শরিয়াহ্) প্রযোজ্য হয় এমন ব্যক্তিগণের ক্ষেত্রে দেনমোহর বা মোহরানা অথবা বিবাহের সময় বিবাহের পক্ষগণের আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব বা শুভাকাঙ্ক্ষী কর্তৃক বিবাহের কোনো পক্ষকে প্রদত্ত উপহার-সামগ্রী ইহার অন্তর্ভুক্ত হইবে না।”

এই সংজ্ঞা অনুযায়ী যেকোনো পক্ষই মামলা করতে পারবে।হোক সে স্বামী পক্ষ বা স্ত্রী পক্ষ। বিবাহের সময় ছেলের জন্য মোটরসাইকেল চাওয়াটা যেমন যৌতুক তেমনি মেয়ের জন্য সোনার গহনা দাবি করাটাও যৌতুক।

যৌতুকের শাস্তিঃ

যৌতুক নিরোধ আইন, ২০১৮ এর ৩ ধারা অনুযায়ী যৌতুক দাবি করলে সর্বোচ্চ ৫ (পাঁচ) বছর এবং সর্বনিম্ন ১ (এক) বছর কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ৫০,০০০ (পঞ্চাশ হাজার) টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবে।

লেখকঃ

মোঃ মনিরুজ্জামান

শিক্ষার্থী আইন বিভাগ, মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

সিলেটপ্রেসবিডিডটকম /০৬ জানুয়ারি ২০২১/ এফ কে


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এই বিভাগের আরও খবর


© All rights reserved © 2020 SylhetPress
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ